আসছে ফোর্স টাচ iPhone 6S

08/30/2015

প্রযুক্তিপ্রেমীরা আগ্রহ নিয়ে অপেক্ষা করছেন সেপ্টেম্বরের ৯ তারিখের জন্য। স্যান ফ্রান্সিস্কোতে (San Francisco) জমকালো আয়োজনের মাধ্যমে সেদিন উদ্বোধন করা হবে আইফোনের পরবর্তী ও নবম ভার্সন! ২০১১ সাল থেকে সেপ্টেম্বর-অক্টোবরের মাঝেই আইফোনের মোড়ক উন্মোচন হয়ে আসছে। আর বলা হয়ে থাকে Apple তাদের প্রোডাক্টের গোপনীয়তার ব্যাপারে সিআইএর (CIA) থেকেও বেশি কঠোর। তাই নিশ্চিত করে কেউই বলতে পারছে না পরের ভার্সনের ব্যাপারে। তাই বিভিন্ন রিপোর্ট, জার্নালের তথ্যের উপর ভিত্তি করে কিছু সম্ভাবনার ব্যাপারে আলোকপাত করা যেতে পারে।

মডেলের নামটা কি হবে?

iPhone এর সাম্প্রতিক নামকরণের রীতির সাথে মিল রেখে Latest iPhone model এর নাম হতে পারে iPhone 6S. কিন্তু এপল যদি আগের মডেলের আমূল পরিবর্তন করে বাজারে নতুন ফোন আনতে চায় সেক্ষেত্রে এর নাম হতে পারে iPhone 7. তবে বেশি সম্ভাবনা আছে iPhone 6S হিসেবে এর নামকরণ করা।

iPhone 6S এর সাইজটা কেমন হবে?

বিভিন্ন রিপোর্ট দেখে ধারণা করা হচ্ছে এর সাইজ হতে পারে গত বছরের আইফোনের মতই। ৪.৭ ইঞ্চির ডিভাইসটির রেজুলেশন হতে পারে 1334 X 750 pixel এর  Retina HD display. তবে এর পুরুত্ব আগের থেকে কমে আসতে পারে।

 রঙ

iPhone 6S মডেলটির Rose Gold color  হবার সম্ভাবনা খুব বেশি। এটি অনেকটা সোনালী ও গোলাপীর মিশ্রণ। গোলাপী আভার সাথে চকচকে সোনালী একটা ভাব।

iPhone 6S Release date

সাধারনত আইফোনের মোড়ক উন্মোচনের সাত থেকে দশ দিন পর আমেরিকায় এর বিক্রি শুরু করা হয়। আর দিনটি হয়ে থাকে শুক্রবার। উদাহরণ স্বরূপ বলা যায় গত বছরের iPhone 6 উদ্বোধনের ১০ দিন পর এর বিক্রি শুরু করা হয় এবং দিনটি ছিল শুক্রবার। সে হিসেব মতে সেপ্টেম্বরের ১৮ তারিখ হয়ত আমেরিকার বাজারে পাওয়া যাবে iPhone 6S.

iPhone 6S Features

স্বাভাবিক ভাবেই Apple তাদের প্রোডাক্টের ক্ষমতা বাড়ানোর ধারা অব্যাহত রাখার জন্য দ্রুতগতির প্রসেসর নিয়ে আসছে এই ফোনে। একই সাথে ক্যামেরার ক্ষেত্রেও অনেক উন্নতি করা হয়েছে। আগের মডেলে ক্যামেরা ছিল ৮ মেগাপিক্সেল কিন্তু সর্বশেষ এই মডেলে যুক্ত হয়েছে ১২ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা।

আর নতুন এই ফোনের সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ ফিচারটি হচ্ছে force touch. একেই এপল সবচেয়ে বেশি promote করছে। ফোর্স টাচ ফিচারটি হালকা electrode এর মাধ্যমে তৈরি। এটি ফোন ব্যবহারকারীর Light tap আর Deep press এর মধ্যে পার্থক্য বুঝতে পারবে।