রুয়ান্ডায় তৈরি হচ্ছে DRONE-PORTS

10/02/2015

এরোপ্লেন আর হেলিকপ্টার এর পর এবার ড্রোন এর জন্যও বন্দর দরকার হয়ে পড়েছে। আর বিশ্বের প্রথম ড্রোন বন্দরটি তৈরি হচ্ছে Rwanda  তে। আফ্রিকান এই দেশটির প্রত্যন্ত পাহাড়ি এলাকায় দ্রুততম সময়ে রক্ত, ওষুধসহ গুরুত্বপূর্ণ সরঞ্জামাদি আদান প্রদানের জন্য এ ড্রোন বন্দর তৈরি করা হবে। বন্দরটি নির্মানে সাহায্য করছে Ecole Polythechnique Federale de Lausanne Switzerland and Afrotech । ব্রিটিশ স্থাপত্যবিদ Norman Foster এ ধরনের একটি ড্রোন বন্দর তৈরির প্রস্তাব দিয়েছেন।
এ বন্দর ব্যবহার করে কার্গো ড্রোন বিশেষ রুট ব্যবহার করে দরকারি সরঞ্জাম নির্দিষ্ট লক্ষ্য পৌঁছে দেবে বলে প্রস্তাবে পেশ করা হয়েছে। এ পরিকল্পনার অংশ হিসেবে তিনটি বিশেষ দালান তৈরি করা হবে যার নির্মাণকাজ ২০২০ সাল নাগাদ শেষ হবে। এই বন্দর থেকে রুয়ান্ডার প্রায় অর্ধেকটা জুড়ে প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম আদান প্রদান করা যাবে। বন্দর ব্যবহার করে ৬০ মাইলের মধ্যে রক্ত এবং জীবন রক্ষাকারী সব উপাদান স্বল্প খরচে বহন করতে সক্ষম হবে ড্রোন।

১৯৯৪ সালের ভয়াবহ গণহত্যার পর রুয়ান্ডা ধ্বংসাবশেষে পরিণত হয়। প্রযুক্তির দ্রুত প্রসারে সরকার খুব দ্রুত সময়ে এ পরিস্থিতি কাটিয়ে উঠতে সক্ষম হয়। Rwanda’র President Paul Kagame রাজধানী কিগালিকে বিনিয়োগকারী ও বহুজাতিক কোম্পানিগুলোর বিনিয়োগের কেন্দ্রস্থলে পরিণত করার লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছেন।

drone

Tech Writer – Techmorich