২০১৫ এর সেরা অ্যাপের খবরাখবর

08/25/2016

প্রতিবছরই নতুন নতুন অ্যাপ আসছে প্লেস্টোরগুলোতে আর স্মার্টফোন ব্যবহারকারীরাও অপেক্ষায় থাকছে নতুন সব অ্যাপের এক্সপেরিএন্স নিতে। গত বছরের (২০১৫) এর সর্বচ্চ ডাউনলোড অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহারকারীরা ব্যবহার করেছেন তার মধ্য থেকে সেরা কিছু অ্যাপের তালিকা তৈরি করেছে দুই মার্কিন টেক জায়ান্ট অ্যাপল আর গুগল এবং। যাঁরা এসব অ্যাপ ব্যবহার করেছেন, তাঁরা তো এগিয়েই রয়েছেন। যাঁরা এখনো এসব অ্যাপ ব্যবহার করেননি তাঁরা ঝটপট ব্যবহার করে দেখতে পারেন।

Google Cardboard: ভার্চুয়াল রিয়েলিটিকে জনপ্রিয় করে তুলেছে গুগল কার্ডবোর্ড অ্যাপটি। ভার্চুয়াল রিয়েলিটি মানেই যাদের কাছে ব্যয়বহুল প্রযুক্তি তাদের জন্য ব্যাপারটা একদম সহজ করে দিয়েছে এই অ্যাপটি। ফোনের মধ্যেই এখন ভার্চুয়াল রিয়েলিটির দেখা পাবেন।

Hyper Photo-Sharing App : হাইপার হচ্ছে সহজ কোথায় বলতে গেলে hybrid of Instagram and Reddit যেটা ফটো শেয়ারিং ম্যাগাজিন হিসেবে কাজ করে। Hyper দিয়ে ইউজাররা একটা সিংগেল সাবমিশনের মাধ্যমে multiple images শেয়ার করতে পারে।

Shadowmatic: মাথা খাঁটিয়ে গেম খেলা পছন্দ করেন যারা তাদের জন্য পুরস্কার পাওয়া এই পাজল গেমটি পছন্দ হবেই। একটি অন্ধকার ছায়াকে কীভাবে আকৃতি দেবেন সেটাই এই গেমের মূল আকর্ষণ। অন্ধকার থেকে আলোয় আসার এই চেষ্টা একবার করে দেখুন, ভালো লাগবে। এটিও তৈরি করা হয়েছে আইফোনের জন্য।

Periscope: বিশ্বের যে কোনো প্রান্তের মানুষের কাছে ভিডিও পৌঁছে দিতে কাজ করে পেরিস্কোপ । পেরিস্কোপের মাধ্যমে আপনি অন্যের চোখ দিয়ে পৃথিবীটাকে দেখতে পারবেন। আপনার চোখেও মানুষ আপনার চারপাশ দেখতে পারবে এই অ্যাপটির মাধ্যমে। ভিডিও করুন এবং অ্যাপটির মাধ্যমে তা শেয়ার করে দিন। যে কোনো সোশ্যাল মিডিয়ার চেয়ে কম কার্যকর নয় এই অ্যাপটি। [Free- iOS and Android]

Cortana: কর্টানার সাথে টেকপ্রেমীদের শখ্যতা আগে থেকেই আছে। কিন্তু অ্যাপ? ইন্টারেস্টিং না? হ্যা, মাইক্রোসফট এবার তার ডিজিটাল এসিস্টেন্টকে নিয়ে একটি বড় পদক্ষেপ নিয়েছে। এখন কর্টানাকে আপনি পেটে পারেন আপনার iPhone or Android এ। আপনি যদি আপনাকে Master Chief কোন পার্সন হিসেবে দেখতে চান তাহলে এই ফ্রি অ্যাপটি উপভোগ করতে পারেন। [Free- iOS and Android]

Office Lens: এই অ্যাপটি আপনার স্মার্টফোনে থাকা মানে আপনি পকেটে একটা স্ক্যানার নিয়ে ঘুরছেন। মাইক্রোসফটের তৈরি এই অ্যাপটি বিনামূল্যে ইনস্টল করে নিতে পারবেন স্মার্টফোনে। তারপর যে কোনো কিছুর ছবি তুলে নিন। যে অংশটুকু পড়তে চান সেটা ক্রপ করে কেটে রাখুন, দেখবেন একেবারে স্পষ্ট পড়তে পারছেন যে কোনো লেখা। এসব স্ক্যান করা কপি আপনি ক্লাউড স্টোরেজেও রাখতে পারবেন।

Enlight: অ্যাপলের আইওএসের জন্য তৈরি এনলাইট অ্যাপটিতে রয়েছে myriad features, including noise reduction, cropping tools, এবং fixes for tone and color। এনলাইট ছবি সম্পাদনার জন্য খুবই চমৎকার একটি অ্যাপ। ফোনের ক্যামেরার লেন্স এবং আলোর স্বল্পতার কারণে অনেক সময়ই কাঙ্ক্ষিত ছবিটি তোলা যায় না। তবে ছবিটিকে যদি একটু সাজিয়ে গুছিয়ে নেওয়া যায় তাহলেই ঠিকঠাক ছবিটা পাওয়া যায়।

Boomerang / Layout / Hyparlaps: ছবি সম্পাদনা এবং শেয়ারিংয়ের জন্য জনপ্রিয় অ্যাপ ইনস্টাগ্রাম। গত বছর তারা নিয়ে এসেছে আরো তিনটি অ্যাপ যা দিয়ে আরো সুন্দর করে ছবি সম্পাদনা করা যাবে। অ্যাপটি আপনার ছবিগুলো দিয়ে একটা ছোট ভিডিও তৈরি করবে। লে-আউট অ্যাপটির মাধ্যমে কোলাজ ছবি তৈরি করা যাবে। আর হাইপার‍ল্যাপসের মাধ্যমে তাৎক্ষণিক টাইম ল্যাপস ভিডিও তৈরি করা যাবে। আর এই তিনটি অ্যাপ থেকেই সরাসরি ইনস্টাগ্রামে ছবি পোস্ট করা যাবে।
Source – TNW, Techcrunch

Rifat Ara – Techwriter